বাংলাদেশ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ স্কটল্যান্ডের সাথে হারলেও খুশির খবর পান ডমিঙ্গো

বাংলাদেশ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ স্কটল্যান্ডের সাথে হারলেও খুশির খবর পান ডমিঙ্গো

বাংলাদেশ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ স্কটল্যান্ডের সাথে হারলেও খুশির খবর পান ডমিঙ্গো
18 October, 2021

 ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর চাকরি হারানো স্টিভ রোডসের জায়গায় একই বছরের আগস্টে দুই বছরের চুক্তিতে সাবেক সাউথ আফ্রিকান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোকে বাংলাদেশের হেড কোচ হিসেবে নিযুক্ত করে বিসিব। বাংলাদেশের হেড কোচ হিসেবে প্রথমে খুব বেশি সাফল্য না পেলেও কিছুদিন আগে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের সাথে সিরিজ জয়েই কপাল খুলেছে এই সাউথ আফ্রিকানের। গতকাল বাংলাদেশ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ স্কটল্যান্ডের সাথে হারলেও খুশির খবর পান ডমিঙ্গো।




 বিসিবির সাথে নতুন চুক্তি করতে যাচ্ছেন এই সাউথ আফ্রিকান। নতুন চুক্তিতে আগের থেকে বেশি বেতন পাবেন ডমিঙ্গো.

কথা ছিল, এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের পারফরম্যান্স দেখেই তাঁর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কিন্তু এর আগে দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পর পর দুটি বড় সিরিজ জয় সর্বোচ্চ ক্রিকেট প্রশাসনের মনোভাব এমন বদলে দিয়েছে যে ওমানে গতকাল স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপ অভিযান শুরুর আগেই ডমিঙ্গোর চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো চূড়ান্ত হয়ে গেছে একরকম। ওমানে সপরিবারে খেলা দেখতে আসার আগেই ডমিঙ্গোর চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর আলোচনা করে এসেছেন বলে জানালেন জাতীয় দলের দেখভাল করা কমিটির প্রধান আকরাম খান। এই সাবেক অধিনায়ক জানাচ্ছিলেন, ‘ডমিঙ্গোর বিষয়ে আমরা খুব ইতিবাচক আছি। আশা করি, শিগগিরই আমরা বাকি আনুষ্ঠানিকতাও সেরে ফেলতে পারব।’


দলের পারফরম্যান্সে অবনতি তাঁর শুরুর সময়ের মতো আশঙ্কার পর্যায়ে চলে না গেলে ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ পর্যন্তই আছেন ডমিঙ্গো। আকরাম জানালেন তেমনই, ‘তাঁকে ২০২৩-এর বিশ্বকাপ পর্যন্তই রেখে দেওয়ার ভাবনা আমাদের।’ সে ক্ষেত্রে ২০২২ সালের অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় পরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও পাচ্ছেন ডমিঙ্গো। যদিও এবারের বিশ্বকাপ পর্যন্ত তাঁর চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির আলোচনা পিছিয়ে গিয়েছিল। সেটি এগিয়ে আনার কারণ ব্যাখ্যায় আকরাম বলছিলেন, ‘জানেনই তো যে আমাদের পক্ষে একজন কোচ চলে গেলে আরেকজনকে পাওয়া কতটা কঠিন। তা ছাড়া আমরা যেমন ভালো কোচ চাই, বাজারে তেমন খুব বেশি নেইও। থাকলেও নানা কারণেই বাংলাদেশে আসতে চান না।’


নতুন মেয়াদে ফুলেফেঁপে উঠবে এই দক্ষিণ আফ্রিকানের ব্যাংক অ্যাকাউন্টও। শুরুতে বেতন ছিল ১৬ হাজার মার্কিন ডলারের বেশি। সেখান থেকে কর কেটে পেতেন ১২ হাজার ডলারের মতো। এক বছর পর চুক্তি অনুযায়ী আরো কিছু বেতন বেড়েছিল তাঁর। এবার নতুন মেয়াদে কত বাড়ছে? আকরাম সে প্রসঙ্গে ঢুকলেনই না। তবে যত দূর জানা গেছে, নতুন মেয়াদে মাসে সাত হাজার ডলার বেশি পাবেন ডমিঙ্গো।